বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি

চুয়েট কুয়েট রুয়েট – CUET KUET RUET

চুয়েট ,কুয়েট নাকি রুয়েট – CUET KUET RUET

বিজ্ঞানে বিভাগে পড়ালেখা করা প্রত্যেক শিক্ষার্থীরই স্বপ্ন থাকে বড়ো হয়ে ভবিষ্যতে ইঞ্জিনিয়ার অথবা ডাক্তার হয়ে নিজের ক্যারিয়ার গড়বে।

আর ইঞ্জিনিয়ারিং হয়ে যাদের ক্যারিয়ার গড়ার ইচ্ছে তাদের পছন্দের উপরের তালিকায় থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ৩টি হলো চুয়েট,কুয়েট এবং রুয়েট।

 

চুয়েট, রুয়েট,কুয়েট মানে কি?

  • চুয়েট- চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
  • কুয়েট- খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
  •  রুয়েট- রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

একসময় তিনটি প্রতিষ্ঠানই বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (বিআইটি)এর অধীনে ছিলো। পরবর্তীতে ২০০৩ সালে ভেঙে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়(CUET,KUET, RUET) নামে আত্মপ্রকাশ করে।

ভর্তি পরীক্ষা ২০২১ এ (CKRUET) গুচ্ছ ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে মোট 14989 জন শিক্ষার্থীর মেরিট প্রকাশ করেছে।

  • যে সকল শিক্ষার্থীর মেরিট 3080 তাদের ভর্তি আগামি মাসের 5 তারিখ।
  • এরপর আসন খালি থাকা সাপেক্ষে মাইগ্রেশন চলতে থাকবে।

ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল দেখুনঃ

CKRUET Admission Test Result 2021

চুয়েট কুয়েট রুয়েট এডমিশন টেস্ট রেজাল্ট ২০২১

 

চুয়েট,কুয়েট ও রুয়েটে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছেই স্বপ্নের মতো । এবার যেহেতু গুচ্ছ পদ্ধতিতে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা হয়েছে ভর্তি পরীক্ষার্থীদের মাঝে একটি টেনশন কাজ করছে কোন বিশ্ববিদ্যালয়টি আমার জন্য ভালো হবে !

তাই ভর্তি পরীক্ষার্থীদের জন্য আমরা নিচের বিষয়গুলো উপর আলোচনা করবো এবং তাদের সামান্য ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করবো।

  • পড়ালেখার মান
  • ক্যাম্পাসের এবং হলের পরিবেশ
  • রাজনৈতিক অবস্থা
  • টিউশনির অবস্থা
  • যাতায়াত ব্যবস্থা
  • গবেষণা ক্ষেত্রে সাফল্য
  1. পড়ালেখার মান: পড়ালেখার মান নিয়ে আলোচনা করতে গেলে কোন বিশ্ববিদ্যালয় কেই কোন বিশ্ববিদ্যালয় এর তুলনা করা যাবে না। তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ই নিজেদের জায়গা থেকে সেরা অবস্থানে রয়েছে।
  2.  ক্যাম্পাস ও হলের পরিবেশ: তিনটি ক্যাম্পাসই সুন্দর । আর তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো সব থেকে গোছানো হলো কুয়েট। তবে হলের দিক থেকে চুয়েট এ প্রথমবর্ষ থেকেই হলে সিট পাওয়া যায় । তবে কুয়েট এবং রুয়েটে ২য় বর্ষ পর্যন্ত ছেলেদের অপেক্ষা করা লাগে।
  3. রাজনৈতিক অবস্থা: ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সাধারণত অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় ল্যাব-ক্লাস বেশি হয়ে থাকে ‌।তাই ইঞ্জিনিয়ারিং বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক ময়দান সবসময় নীরব ই থাকে।
  4.  টিউশনির অবস্থা: কুয়েট, রুয়েট,চুয়েট কোনটিই ঢাকায় অবস্থিত না হওয়ায় টিউশন অবস্থা ঢাকার কেন্দ্রীক বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে কিছুটা কম। তবে তিনটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে চুয়েটের টিউশনির মান কিছুটা ভালো । বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা চট্টগ্রাম শহরে এসে টিউশন করিয়ে থাকে।
  5. যাতায়াত ব্যাবস্থা: তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে কুয়েট/রুয়েট এ ট্রেনে যাতায়াত ব্যবস্থা ভালো । দুটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই ট্রেন স্টেশন কাছে হওয়ায় সহজেই দূর থেকে আশা যাওয়া করা যায়
  6. গবেষনা ক্ষেত্রে সাফল্য: তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়েরই গবেষণা ক্ষেত্রে সাফল্য আকাশচুম্বী। তাছাঢ়া তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ই অসংখ্য গ্রাজুয়েট বাইরে প্রতিবছর গবেষণা করতে হানা দেয়।

চুয়েট কুয়েট রুয়েট – CUET KUET RUET

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button